» যে কারণে নিউজিল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পেলনা শ্রীলঙ্কা

Published: 01. Jun. 2019 | Saturday

ঢাকা: বোলার ম্যাট হেনরি এবং লুকি ফার্গুনসনের গতির সঙ্গে যেমন পেরে উঠেনি শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। আবার লঙ্কান বোলাররাও পাত্তা পায়নি নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের কাছে। ফলে ১০ উইকেটের বড় জয় দিয়ে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে উড়ন্ত সূচনা করেছে নিউজিল্যান্ড।

নিউজিল্যান্ডের বোলারদের তোপের মুখে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমে মাত্র ১৩৬ রানেই গুটিয়ে গেছে শ্রীলঙ্কা। জবাবে সহজ লক্ষ তাড়া করতে নেমে মাত্র ১৬.১ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। দলের হয়ে অসাধারণ ব্যাটিং করন দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও কলিন মুনরো। তাদের কল্যাণে ১০ উইকেটের বড় জয় পায় নিউজিল্যান্ড। দলের জয়ে ৭৩ রান করেন গাপটিল। আর ৫৮ রান করেন কলিন মুনরো।

শনিবার (১ জুন) কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্সে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেনে উইলিয়ামসন। ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ধাক্কা খেয়েছে শ্রীলঙ্কা। ম্যাট হেনরির বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন লাহিরু থিরিমান্নে।

শুরুর ধাক্কা সামলাতে অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নের সাথে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন কুসল পেরেরা। কিন্তু ৪২ রানেই থামে করুনারত্নে-পেরেরার জুটি। ২৪ বলে ২৯ রান করে ম্যাট হেনরির বলে ডি গ্র্যান্ডহোমের তালুবন্দি হয়ে বিদায় নেন কুসল পেরেরা। এরপর অধিনায়ক করুনারত্নে একপ্রান্ত আগলে রাখলেও উইকেটে সেট হতে পারেননি কুসল মেন্ডিজ, এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও জীবন মেন্ডিজ।

মুলত ম্যাট হেনরি এবং লুকি ফার্গুনসনের গতির সঙ্গে পেরে উঠেনি লঙ্কান ব্যাটসম্যান। তবে ইনিংসের শুরু থেকেই দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিলে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেন তিনি। প্রথম বল থেকে ইনিংস শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের গতি দানবদের বিপক্ষে একাই লড়াই করেন করুনারত্নে। যোগ্য সঙ্গীর অভাবে দলকে সম্মানজনক স্থানে নিয়ে যেতে পারেননি।

শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে লাসিথ মালিঙ্গার বিদায়ের মধ্য দিয়ে ২৯.২ ওভারে ১৩৬ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। দলের হয়ে টানা ১৪৬ মিনিট ব্যাট করে ৮৪ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৫২ রানে অপরাজিত থাকেন লঙ্কান অধিনায়ক করুনারত্নে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন ম্যাট হেনরি ও লুকি ফার্গুনসন।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, কুসল পেরেরা, কুসল মেন্ডিজ, এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, জীবন মেন্ডিজ, থিসারা পেরেরা, ইসুরু উদানা, লাসিথ মালিঙ্গা, সুরাঙ্গা লাকমাল।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো, কেন উইলিয়ামসন(অধিনায়ক), রস টেইলর, টম লাথাম, জেমস নিশাম. কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, ম্যাট হেনরি, লোকি ফার্গুসন ট্রেন্ট বোল্ট।