» ঈদ বুধবার হতে পারে, বলছে অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার

Published: 01. Jun. 2019 | Saturday

চাঁদের অবস্থান বলছে, আগামী ৫ জুন বুধবার বাংলাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর হবে। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, ইরান, ওমান ও মরক্কোসহ যেসব দেশে ৭ মে রোজা শুরু হয়েছে সেসব দেশের আকাশে ৪ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দেখা যাবে শাওয়াল মাসের চাঁদ। এসব দেশে ২৯ দিনে শেষ হবে সিয়াম সাধনার মাস। সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টারের (আইএসি) ১৪টি দেশের ২৮ জন বিশেষজ্ঞের স্বাক্ষরসহ এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়।

বিজ্ঞানের হাত ধরে মানুষের জ্ঞানের পরিধিও আকাশ ছুয়েছে। এখন পৃথিবীতে বসেই অনায়াসে হিসাব-নিকাশ করে দেওয়া যায় হাজার কোটি মাইল দূরের চাঁদ-তারার অবস্থান। আগে থেকেই জানা যায়, সূর্যগ্রহণ বা চন্দ্রগ্রহণ কবে হবে, আর সবচেয়ে ভালোভাবে দেখাই বা যাবে কোথা থেকে।

সে রকম হিসাব-নিকাশ কষেই অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার বলছে, বাংলাদেশসহ ৭ মে রোজা শুরু হওয়া দেশগুলোতে এবার রোজা হবে ২৯টি। আর মঙ্গলবার সন্ধ্যায়ই দেখা যাবে শাওয়াল মাসের চাঁদ। আকাশ পরিষ্কার থাকলে, সেই দিন ৬টা ৪২ মিনিট থেকে পরবর্তী ৫৮ মিনিট স্পষ্টভাবেই দেখা যাবে শাওয়ালের চাঁদ।

বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটিও এমন ধারণা প্রকাশ করেছে। সোসাইটির সহসভাপতি ফজলুর রহমান সরকার এনটিভিকে বলেছেন, ৩ জুন সোমবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টা ৩ মিনিটে চাঁদের জন্ম হবে। ৪ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চাঁদের বয়স হবে ২৬ ঘণ্টা। সুতরাং আমরা ওইদিন সন্ধ্যার পর ভালোভাবেই চাঁদ দেখতে পারব। চাঁদ যদি দেখা যায়, তাহলে ৫ জুন বুধবার দেশে ঈদুল ফিতর হবে বলে আমরা আশা করছি।

অন্যদিকে আইএসির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মক্কা, রিয়াদ, বাগদাদ, কুয়েত, দোহা ও আবুধাবির আকাশে ৩ জুন সোমবার সন্ধ্যায় ২ থেকে ৬ মিনিটের জন্য শাওয়ালের চাঁদ দৃশ্যমান হবে। তবে এদিন এসব দেশ থেকে খালি চোখে চাঁদ দেখা দুষ্কর হবে। পশ্চিম আমেরিকা ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় কয়েকটি দেশের আবহাওয়া ভালো থাকলে সেদিন টেলিস্কোপের মাধ্যমে শাওয়ালের চাঁদ দেখা যাবে।

আইএসি আরো জানায়, যেসব দেশে ৬ মে রমজান শুরু হয়েছে সেসব দেশে ৩০ দিন রমজান হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। সে হিসেবে আরব দেশসহ পৃথিবীর অধিকাংশ দেশে ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হতে পারে ৫ জুন বুধবার।