» ১২’শ কোটি টাকা মূল্যের কে এই ফেলিক্স?

Published: 27. Jun. 2019 | Thursday

অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে ৫ মৌসুম কাটানো আন্তোনিও গ্রিজম্যান ক্লাব ছেড়েছেন কিছুদিন হলো। নতুন কোন ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি করেছেন তা জানা না গেলেও, অ্যাতলেটিকো সভাপতি কিছুদিন আগে ফাঁস করেছেন, বার্সেলোনার সঙ্গে ইতোপূর্বেই চুক্তি হয়ে আছে গ্রিজম্যানের। কয়েকদিনের ভেতরেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে এই ব্যাপারে।

অ্যাতলেটিকোর আক্রমণভাগের নেতা ছিলেন গ্রিজম্যান। ফ্রান্সের হয়ে ২০১৮ বিশ্বকাপ জেতা এই ফরোয়ার্ড স্প্যানিশ ক্লাবটির মধ্যমণি হয়ে কাটিয়েছেন ৫টি বছর। লস রোজি ব্লাঙ্কোসরা এখন তাই গ্রিজম্যানের যোগ্য উত্তরসূরি খুঁজতে মরিয়া। পছন্দের একজনকে পেয়েও গেছে তারা। এরই মধ্যে সেই খেলোয়াড়ের জন্য বিডও করেছে অ্যাতলেটিকো বোর্ড।

ফুটবলারটির নাম হোয়াও ফেলিক্স। পর্তুগিজ, বয়স মাত্র ১৯। খেলেন বেনফিকাতে। বেশ তরুণ হলেও এই আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডারের জন্য অ্যাতলেটিকোকে কত মিলিয়ন ইউরো গুণতে হচ্ছে, তা জানলে অবাক না হয়ে উপায় থাকছে না! বেনফিকা জানিয়েছে, অ্যাতলেটিকো থেকে ফেলিক্সের জন্য ১২৬ মিলিয়ন ইউরোর (প্রায় ১২শ কোটি টাকা) প্রস্তাব পেয়েছে তারা।

যদি বেনফিকা এই প্রস্তাবে সম্মতি জানায় তবে অ্যাতলেটিকো ইতিহাসের সবচেয়ে দামী ফুটবল হবে ফেলিক্স। এখন পর্যন্ত, ডিয়েগো সিমিয়নের দলে সবচেয়ে দামী ফুটবল গত মৌসুমেই ক্লাবে যোগ দেয়া থমাস লেমার। তাকে কিনতে ৭২ মিলিয়ন ইউরো খরচ করেছিল অ্যাতলেটিকো বোর্ড। অর্থাৎ, লেমারের দ্বিগুণ মূল্যে ফেলিক্সকে দলে টানতে চাচ্ছে স্প্যনিশ ক্লাবটি।

এদিকে অ্যাতলেটিকো-বেনফিকার মধ্যে সমঝোতা হয় গেলে আরও একটি ইতিহাসও দেখবে ক্লাব ফুটবল। ১২৬ মিলিয়ন ইউরোতে ফেলিক্সের দফা-রফা হলে, ক্লাব ফুটবল ইতিহাসে চতুর্থ সর্বোচ্চ মূল্যে ট্র্যান্সফারের রেকর্ড গড়বেন তিনি