Mon. Sep 23rd, 2019

মাশরাফি ‘ম্যাজিক’ দেখার অপেক্ষা

1 min read

ওস্তাদের মার নাকি শেষ রাতে। শিকার করার সময় বাঘ প্রথমে দুই পা পিছিয়ে আসে এরপর পুরোদমে ঝাপিয়ে পড়ে শিকারের ওপর। মাশরাফি বিন মতুর্জার ক্ষেত্রেও কি এমনটাই হচ্ছে। পুরো টুর্নামেন্টে বিবর্ণ মাশরাফির দেখা মিলবে কি শেষ দুটি ম্যাচে?

এবারের টুর্নামেন্ট নিয়মিত বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ বোলিং বিশ্লেষণ কার? উত্তর মাশরাফি বিন মতুর্জা। ছয় ম্যাচে ২৬৪ বল করে টাইগার দলপতি দিয়েছেন ২৭৯ রান। পেয়েছেন একটি মাত্র উইকেটের দেখা। টুর্নামেন্টে অন্তত এক উইকেট পেয়েছেন এমন বোলারের সংখ্যা ৭০ জন। তাদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে রয়েছেন টাইগার অধিনায়ক।

বিশ্বকাপের আগেও মাশরাফির এমন খারাপ অবস্থা ছিল না। আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজে সেরা উইকেট শিকারীর তালিকায় তৃতীয় স্থানে ছিলেন মাশরাফি। চার ম্যাচে নেন ছয় উইকেট। তার চেয়ে বেশি উইকেট ছিল না কোনো টাইগার বোলারের। অথচ আয়ারল্যান্ড থেকে ইংল্যান্ডে এসেই বিবর্ণ হয়ে পড়লেন ম্যাশ।

এবারের বিশ্বকাপটা আক্ষরিক অর্থেই পেসারদের বিশ্বকাপ। সেরা দশ উইকেট শিকারীর মধ্যে স্পিনার কেবল দুজন। আর পেসারদের স্বর্গভূমিতেও নিজেকে কিনা খুজে ফিরছেন মাশরাফি। টুর্নামেন্টে ৭ ম্যাচে ১৯ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে রয়েছন মিচেল স্টার্ক। ৭ ম্যাচে ১৬ উইকেট জোফরা আর্চারের। ১৫ উইকেট নিয়ে তৃতীয় স্থানে মোহাম্মদ আমির। ১৪ ও ১৩ উইকেট নিয়ে পরের দুটি নাম মার্ক উড ও প্যাট কামিন্সের।

সেমিফাইনালে উঠতে হলে পরের দুটি ম্যাচে ভারত ও পাকিস্তানকে হারাতেই হবে বাংলাদেশের। ব্যাটিং বোলিংয়ে এবারের আসরে টাইগারদের পারফরম্যান্সটা দারুন। সাকিব-মুশফিক-মুস্তাফিজ-সাইফুদ্দিনরা প্রতি ম্যাচে দারুণ করছেন।

এবার দায়িত্বটা মাশরাফিকেও নিতে হবে। শেষ দিকে হলেও জ্বলে উঠতে হবে ‘দ্য ক্যাপটেন’কে। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের সামনে সেমিফাইনালের হাতছানি। এমন সময়ে মাশরাফি ম্যাজিকের বড়ই অভাব বোধ করছেন টাইগার সমর্থকরা।

সেমিফাইনালের ড্রেস রিহার্সেলে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে নামছে বাংলাদেশ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের পর কয়েকদিনের বিরতি পেয়েছে বাংলাদেশ। এই অবসরে মাশরাফি যদি নিজেকে খুজে পান তাহলে টাইগারদের সেমিফাইনাল গন্তব্য খুব দূরে নয়!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.