| শাহজালাল বিমানবন্দরে তিন মিনিটেই ‘সৌদি ইমিগ্রেশন’ -

» শাহজালাল বিমানবন্দরে তিন মিনিটেই ‘সৌদি ইমিগ্রেশন’

Published: 03. Jul. 2019 | Wednesday

স্টাফ রিপোর্টার :  আগামীকাল ৪ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে হজ ফ্লাইট। চলতি বছর সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ৭৯৮ জন পবিত্র হজ পালন করবেন। তাদের মধ্যে ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ৬০ থেকে ৬৫ হাজার হজ যাত্রীর সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সম্পন্ন হবে। এ বছরই প্রথম বারের মতো সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন বাংলাদেশে হচ্ছে। ফলে জেদ্দা বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনের জন্য এহরামের পোশাক পরিহিত অববস্থায় হজ যাত্রীদের ৮-১০ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো, তা করতে হবে না।

হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে সৌদি আরব অংশের এই ইমিগ্রেশনে সময় কতটুকু লাগতে পারে, তা জানার জন্য হজ যাত্রী, তাদের স্বজন, এমনকি সাধারণ মানুষের মধ্যেও ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে।
ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা মঙ্গলবার এ প্রতিবেদককে বলেন, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করতে হজ যাত্রী প্রতি সময় লাগবে মাত্র তিন মিনিট। ইতোমধ্যে সৌদি ইমিগ্রেশনের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সেখানে মোট ১৫টি কাউন্টার খোলা হয়েছে। যাত্রীদের অপেক্ষার জন্য বসার চেয়ারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ওই কর্মকর্তা জানান, হজ গমনেচ্ছু মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন যাত্রীর মধ্যে ৫০ শতাংশ রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও অবশিষ্ট ৫০ শতাংশ সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স পরিবহন করবে। এ বছর দুই এয়ারলাইন্স মিলিয়ে ৬০-৬৫ হাজার হজযাত্রীর সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন শাহজালালে হবে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার সব (৭ হাজার ১৯৮ জন) যাত্রীর সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন শাহজালালেই হবে।

জানা গেছে, সৌদি অংশের ইমিগ্রেশন করার জন্য শাহজালালের একটি অংশ ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পৃথক একটি বোর্ডিং ব্রিজও রাখা হয়েছে। যেসব হজযাত্রীর সৌদি অংশের ইমিগ্রেশন শাহজালাল বিমানবন্দরে হবে, সেসব যাত্রীকে প্রথমে বাংলাদেশ অংশের ইমিগ্রেশন আশকোনা হজক্যাম্পে সম্পন্ন হবে। পরে শাহজালাল বিমানবন্দরে গিয়ে সৌদি অংশের ইমিগ্রেশন করতে হবে। এসব হজযাত্রীকে কমপক্ষে ৮-১০ ঘণ্টা আগে আশকোনা হজক্যাম্পে রিপোর্টিং করতে হবে।

আশকোনা হজক্যাম্পে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে হজযাত্রীরা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন কেন্দ্রে যাবেন। সেখানে মোট ১৫টি কাউন্টারে যাত্রীরা তাদের ইমিগ্রেশন করবেন।

৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রতিটি ডেডিকেটেড ফ্লাইটে মোট ৪১৯ জন যাত্রী পরিবহনের কথা। সে অনুযায়ী, ১৫টি কাউন্টারে ৪১৯ জন যাত্রীর প্রত্যেকের তিন মিনিট করে ইমিগ্রেশন করতে মোট ১ ঘণ্টা ২৩ মিনিট সময় লাগবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জানান, আজ (মঙ্গলবার) বিকেল ৩টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ আনুষ্ঠানিকভাবে হজ কার্যক্রম ২০১৯ উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ ও ধর্ম সচিব আনিছুর রহমান হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের যে স্থানে সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন হবে, সেখানকার প্রস্তুতি সরেজমিন পরিদর্শন করেন। সামগ্রিক প্রস্তুতিতে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং সৌদি কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান।