ওয়ার্নার-বেয়ারেস্টর ব্যাটে রানের পাহাড়ে হায়দরাবাদ

স্পোর্টস ডেস্ক:

মোক্ষম সময়েই যেন জ্বলে উঠলো সানরাইজার্স হায়দরাবাদের উদ্বোধনী জুটি। ডেভিড ওয়ার্নার এবং জনি বেয়ারেস্ট। এই দু’জনের ব্যাটে আজ যেন বিধ্বস্তই হতে হচ্ছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে।

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এর আগে ৫ ম্যাচ খেলে মাত্র ২টি জয় হায়দরাবাদের। ৩টিতে হার। পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৬ নম্বরে। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে হারাতে পারলে তারা চলে আসবে তিন কিংবা চার নম্বরে।

সে লক্ষ্যেই টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার একসঙ্গে জ্বলে উঠলেন। ডেভিড ওয়ার্নার আর জনি বেয়ারেস্ট জুটি মিলে বিধ্বস্ত করে ছাড়ে পাঞ্জাব বোলারদের।

মোহাম্মদ শামি, শেলডন কটরেল, মুজিব-উর রহমান, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, রবি বিষ্ণোই এবং আর্শদিপ সিংদের একের পর এক ব্যবহার করেও কোনো ফল পাননি পাঞ্জাব অধিনায়ক লোকেশ রাহুল।

১৫ ওভার খেলে ফেলে ওয়ার্নার আর বেয়ারেস্টর উদ্বোধনী জুটি। অবশেষে ১৬তম ওভারের প্রথম বলে গিয়ে রবি বিষ্ণোইর বলে এই জুটিতে ভাঙন ধরে। এ সময় হায়দরাবাদের দলীয় রান ছিল ১৬০। ৪০ বলে ৫২ রান করে আউট হন ওয়ার্নার। ৫টি বাউন্ডারির সঙ্গে তিনি মারেন ১টি ছক্কার মার।

জনি বেয়ারেস্টর জন্য আফসোস। মাত্র ৩ রানের জন্য এবারের আইপিএলে তৃতীয় সেঞ্চুরিটি করতে পারলেন না তিনি। ৫৫ বলে ৯৭ রানের ঝড় তুলে আউট হয়ে যান এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৬টি ছক্কার মার মারেন তিনি।

শেষ দিকে কেন উইলিয়ামসন ১০ বলে অপরাজিত ২০ রান করে সানরাইজার্সের স্কোরকে ২০০ পার করে দেন। শেষ পর্যন্ত সানরাইজার্সের স্কোর গিয়ে দাঁড়ায় ৬ উইকেট হারিয়ে ২০১ রান। ১২ রান করেন অভিষেক শর্মা।

পাঞ্জাবের বোলার রবি বিষ্ণোই একাই নেন ৩ উইকেট। যদিও ৩ ওভারে ২৯ রান দিয়েছেন তিনি। আর্শদিপ সিং নেন ২ উইকেট। ৪ ওভারে তিনি দেন ৩৩ রান। ১ উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *