প্রিয় এমসিজিতে ডিনোকে শেষ বিদায়

স্পোর্টস ডেস্ক:
মৃত্যুর দশদিন পর প্রিয় মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে শেষবারের জন্য ‘ল্যাপ অব অনার’ পেলেন প্রফেসর ডিনো। ফাকা মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ডিন জোন্সের প্রাইভেট ফেয়ারওয়েলে হাতে গুনে হাজির ছিলেন পরিবারের জনাদশেক সদস্য।

করোনার কারণে ভিক্টোরিয়া প্রদেশ আপাতত লকডাউনে। স্বাভাবিকভাবেই প্রয়াত ডিন জোন্সের শেষকৃত্যের অনুষ্ঠান সে অর্থে অনুরাগীদের প্রবেশের কোনও অনুমতি ছিল না।

অস্ট্রেলিয়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ উদ্যোগে ভারত থেকে সম্প্রতি ডিন জোন্সের দেহ ফেরানো হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ায়। প্রাইভেট কারে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে যখন ডিনের কফিন প্রবেশ করে, তখন স্টেডিয়ামের পাবলিক অ্যাড্রেস সিস্টেমে বাজানো হয় এলটন জন এবং আইএনএক্সএসে’র মিউজিক।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের বর্ণময় চরিত্র ডিন জোন্স ক্যারিয়ারে তার ৫২টি টেস্ট ম্যাচের মধ্যে ৬টি ম্যাচ খেলেছিলেন এমসিজিতেই। এছাড়া কার্লটন ক্লাব থেকে মেলবোর্ন ক্রিকেট ক্লাবে নাম লেখানোর পর অসংখ্য রাজ্য এবং ক্লাব পর্যায়ের ক্রিকেট এই স্টেডিয়ামেই খেলেছেন ডিনো।

ডিন জোন্সের স্ত্রী জেন জোন্স বলেন, ‘গত এক সপ্তাহ ধরে অনুরাগীরা ডিনের মৃত্যুতে যেভাবে দুঃখপ্রকাশ করেছে তা আমাদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ফাঁকা স্টেডিয়ামে বন্ধু এলটনের মিউজিক ছাড়া তাকে বিদায় জানানোর আর ভালো উপায় হতে পারে না। আমরা মেলবোর্ন ক্রিকেট ক্লাবের কাছে ব্যাপকভাবে কৃতজ্ঞ। আমরা কৃতজ্ঞ অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছেও। যাদের সহায়তা ছাড়া সহজে ডিনের মৃতদেহ ঘরে ফেরানো যেত না। তবে আমরা ডিনের এনার্জি, ক্রিকেটের প্রতি প্যাশন, পরিবারের প্রতি ভালোবাসা সবকিছু মিস করব।’

যে গাড়ি ডিনোর কফিন নিয়ে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে প্রবেশ করে, সেই গাড়ির জানালায় ফুল দিয়ে লেখা ছিল ৩২৪ সংখ্যাটি। যা প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে তার সর্বোচ্চ স্কোর।

উল্লেখ্য, আইপিএল সম্প্রচারকারী চ্যানেলের হয়ে ধারাভাষ্য দেওয়ার জন্য সম্প্রতি মুম্বাইয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন ডিন জোন্স। গত ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে মুম্বাইয়ের এক পাঁচতারা হোটেলে সকালের নাস্তা করার কিছু পরই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তার।

মৃত্যুকালে প্রফেসর ডিনো পাশে পেয়েছিলেন তার সহকর্মী ব্রেট লি’কে। লি তার মুখে মুখ দিয়ে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাস চালানোর চেষ্টা করলেও শেষরক্ষা করতে পারেননি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *