» ভয়াল ২৯ এপ্রিল নিহতদের স্মরণে ভোলায় মানববন্ধন

Published: ২৯. এপ্রি. ২০১৮ | রবিবার

ভোলা::
ভোলায় দুর্যোগ ও জলবায়ু সহনশীল অবকাঠামো নির্মাণের দাবীতে ভয়াল ২৯ এপ্রিল ঘূর্ণিঝড় ‘ম্যারিএন’-এ নিহতদের স্মরণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল ১০টা থেকে ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে বিভিন্ন এনজিও সংস্থ্যার আয়োজনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কোস্ট ট্রাস্টের আঞ্চলিক টিম লিডার রাশিদা বেগম, এ্যাডভোকেট শাহাজাহান, ভোলা নাগরিক অধিকার ফোরামের সম্পাদক এ্যাডভোকেট সাহাদাত হোসেন শাহিন, কোস্ট ট্রাস্টের আইইসিএম প্রকল্পের প্রকল্প সম্মনয়কারী মো. মিজানুর রহমান, ইকো ফিশ প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. জহিরুল ইসলাম, মনিটরিং অফিসার খোকন চন্দ্র শীল, ইকোফিশ প্রকল্পের সহ-সমন্বয়কারী সোহেল মাহামুদ ও রাজিব ঘোষ প্রমুখ।
এ সময় বক্তারা বলেন, ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল ভয়াল সেই ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় ১ লক্ষ ৩৮ হাজার লোক মারা যায়। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকার সম্পদ। বক্তারা ভোলাসহ উপকূলীয় এলাকার দুর্যোগ ঝূঁকি মোকাবেলায় টেকসই উন্নয়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।
তারা আরও বলেন, আজ জলবায়ু তহবিলের টাকায় অনেক ক্ষেত্রে জলবায়ুর জন্য ক্ষতিকর প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রাকৃতিক দেয়াল বন ধ্বংস করে রাস্তাঘাট করা হচ্ছে। আধুনিকায়নের নামে অনেক ক্ষেত্রে প্রাকৃতি সম্পদ ধ্বংস করা হচ্ছে নির্বিচারে। জলবায়ু তহবিলের টাকা ব্যবহারের স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেন বক্তারা।
অনেক ক্ষেত্রে দাতা সংস্থাগুলোর ব্যবস্থাপনায় অধিকাংশ টাকা ব্যয় হচ্ছে। কিন্তু সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠী তার সুফল পাচ্ছে না। এসময় বক্তারা উপকূলীয় এলাকায় টেকসই বেড়িবাঁধ ও সিসি ব্লকের মাধ্যমে নদী ভাঙন রোধ এবং সেনা বাহিনীর তত্ত্বাববধানে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবী তুলে ধরেন।
স্থানীয় এনজিও কোস্ট ট্রাস্ট, গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা, পরিবার উন্নয়ন সংস্থা, পল্লীসেবা সংস্থা এই মানববন্ধনের আয়োজন করেন।